জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতিকে গ্রেফতার করায় নিন্দা

Spread the love

মো.শাহজাহান মিয়া ::

 

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সুনামগঞ্জ-৩ (জগন্নাথপুর ও দক্ষিন সুনামগঞ্জ) আসনে মনোনীত সংসদ সদস্য প্রার্থী অ্যাডভোকেট মাওলানা শাহীনুর পাশা চৌধুরীর ধানের শীষের নির্বাচনী পরিচালনা কমিটির প্রধান সমন্বয়ক শিক্ষাবিদ আবু হোরায়রা সাদ মাস্টার ও পাটলি ইউনিয়ন যুবদলের সাধারন সম্পাদক রাসেল বক্সকে গ্রেফতার করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে জগন্নাথপুর বিএনপি পরিবার।
বিবৃতিদাতারা হলেন, সুনামগঞ্জ-৩ আসনে ঐক্যফ্রন্টের ধানের শীষের সংসদ সদস্য প্রার্থী অ্যাডভোকেট মাওলানা শাহীনুর পাশা চৌধুরী, সুনামগঞ্জ জেলা আইনজীবি সমিতির সভাপতি ও সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মল্লিক মঈন উদ্দিন সুহেল, জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি ও জগন্নাথপুর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ আতাউর রহমান, জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি এমএ মুকিত, সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট জিয়াউর রহিম শাহিন, রফিকুল ইসলাম খসরু, সাবেক চেয়ারম্যান, আকছির আলী, উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক জামাল উদ্দিন আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মোসাব্বির আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সোবহান, জগন্নাথপুর পৌর বিএনপির সভাপতি এমএ মতিন, সাধারন সম্পাদক হাজী হারুনুজ্জামান হারুন, সাংগঠনিক সম্পাদক শামসুল ইসলাম, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারজানা আক্তার, কলকলিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি কামরুজ্জামান, ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক সাদিকুর রহমান নান্নু, পাটলি ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি হাজী শফিকুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক আব্দুর নুর, মিরপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আব্দুর নুর, সাধারন সম্পাদক আখলুল করিম, চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়ন বিএনপির আহবায়ক ডা. রাজা মিয়া, প্রথম সদস্য মাসুক মিয়া, রানীগঞ্জ ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি হাজী চান মিয়া, সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট আজমল হোসেন, সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি সৈয়দ আলী আহমদ দুলা, ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক রাহিন তালুকদার, আশারকান্দি ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ফজলুর রহমান কবেরী, সাধারন সম্পাদক ফখরুল ইসলাম, পাইলগাঁও ইউনিয়ন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিকুর রহমান তহুর, সাধারন সম্পাদক সৈয়দ জুবায়ের আহমদ আবু, জগন্নাথপুর উপজেলা যুবদলের যুগ্ম-আহবায়ক ও সুনামগঞ্জ জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি আবুল হাশিম ডালিম, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম-আহবায়ক আনহার মিয়া, যুগ্ম-আহবায়ক সৈয়দ শফিকুর রহমান, যুগ্ম-আহবায়ক হাজী সোহেল আহমদ খান টুনু, সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি মিজান কোরেশী, সাধারন সম্পাদক সৈয়দ ইসহাক আহমদ, রানীগঞ্জ ইউনিয়ন যুবদলের সাধারন সম্পাদক আব্দুর নুর, কলকলিয়া ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি সেলিম আহমদ, সাধারন সম্পাদক জহিরুল ইসলাম লেবু, আশারকান্দি ইউনিয়ন যুবদলের সাধারন সম্পাদক ইউসুফ মিয়া, যুবদল নেতা এমএ মালেক, পাইলগাঁও ইউনিয়ন যুবদল নেতা আবু বক্কর মধু, হাফিজুর রহমান, চিলাউড়া- হলদিপুর ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি সেলিম আহমদ, সাধারন সম্পাদক রুবেল মিয়া ,মিরপুর ইউনিয়ন যুবদল নেতা আলিউল আহমদ, জগন্নাথপুর পৌর যুবদলের যুগ্ম-আহবায়ক ও জেলা যুবদলের সদস্য লিটন মিয়া, পৌর যুবদল নেতা ও জেলা যুবদল সদস্য শামিম আহমদ, সুনামগঞ্জ জেলা সেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক হাজী হারুনুর রশীদ, জেলা সেচ্ছাসেবক দল সদস্য নুরুল আমিন, জগন্নাথপুর উপজেলা ছাত্রদল নেতা শাহজান উদ্দিন রুহেল, শেখ মামুন, মামুনুর রশিদ, জুনেদ আহমদ, সৈয়দ জাবির আহমদ, জগন্নাথপুর পৌর ছাত্রদল নেতা তোফায়েল আহমদ, নুর আলম, জগন্নাথপুর কলেজ ছাত্রদল নেতা দুলু মিয়া, জাকারিয়া আহমদ প্রমুখ ।
বিবৃতিদাতারা গ্রেফতারকৃত জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবু হোরায়রা সাদ মাস্টার ও পাটলি ইউনিয়ন যুবদলের সাধারন সম্পাদক রাসেল বক্স এর নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান এবং তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, মামলা-হামলার ভয় দেখিয়ে ধানের শীষের বিজয় ধমিয়ে রাখা যাবে না। আগামী ৩০ ডিসেম্বর সুনামগঞ্জ ৩ আসনে ধানের শীষের বিজয় নিশ্চিত হবে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!