জগন্নাথপুরে মাকে পেটালো বড় ছেলে, প্রতিবাদ করায় ছোট ছেলে বাড়ি ছাড়া

Spread the love

 

মো.শাহজাহান মিয়া ::

 

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে আপন গর্ভধারিনী মাকে পাষন্ডের মতো পেটালো ওই দুঃখিনী মায়ের আদরের বড় সন্তান মির্জা হোসেন। এ সময় মাকে বাঁচাতে এগিয়ে যায় ছোট ছেলে জাকির হোসেন। যে কারণে বড় ভাইয়ের ভয়ে এখন বাড়ি ছাড়া প্রতিবাদী ভাই জাকির। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে, জগন্নাথপুর উপজেলার রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রামে।
জানাগেছে, গত ৮ অক্টোবর পারিবারিক বিরোধ নিয়ে বাড়ি থেকে আপন মাকে তাড়িয়ে দিতে চায় মির্জা হোসেন ও তার লোকজন। বাড়ি ছেড়ে না যাওয়ায়, সে তার মাকে মারপিট করে ঘরের আসবাবপত্র ভাংচুর করেছে। এতে প্রতিবাদ করায় ছোট ভাই জাকির হোসেনকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে। বর্তমানে বড় ভাইয়ের ভয়ে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে প্রতিবাদী ভাই জাকির হোসেন।
এ ঘটনায় ৬৪ বছরের বৃদ্ধ মা তাজমহল বেগম তার আপন বড় ছেলে মির্জা হোসেন, সৎ ছেলে কাশেম মিয়া সহ ৪ জনকে আসামী করে জগন্নাথপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এছাড়া পৃথক ভাবে ছোট ভাই জাকির হোসেন আরেকটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।
এ বিষয়ে জাকির হোসেন জানান, আমার আপন বড় ভাই হয়ে নিজের মাকে প্রায়ই অত্যাচার করে। এলাকার গণ্যমান্য লোকজন তা জানেন। কেউ তার বিচার করেন না। তাই বাধ্য হয়ে ন্যায় বিচার পাওয়ার আশায় আইনের আশ্রয় নিয়েছি। বর্তমানে আমার ভাইয়ের ভয়ে আমি বাড়িতে যেতে পারছি না। বাড়িতে গেলেই আমাকে মারপিট করবে। এদিকে-চেষ্টা করেও মির্জা হোসেনের মন্তব্য পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করে জগন্নাথপুর থানার এসআই মির্জা সাফায়েত হোসেন বলেন, থানায় উভয় পক্ষ অভিযোগ দিয়েছে। তদন্তক্রমে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে কোন ছেলে তার মাকে মারপিট করবে, তা কোন অবস্থায় মেনে নেয়া যায় না।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *