জগন্নাথপুরে বাছাইকালে ২ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল, বৈধ ৩৮

Spread the love

 

মো.শাহজাহান মিয়া ::

 

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার ৭ ইউনিয়নে আগামী ২৬ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। প্রার্থীতা প্রত্যাহার ৬ ডিসেম্বর ও ৭ ডিসেম্বর হবে প্রতীক বরাদ্দ।
এর মধ্যে ২৯ নভেম্বর সোমবার বাচাই-বাছাইকালে ২ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। বাতিল হওয়া প্রার্থীরা হলেন ৬নং রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান মজলুল হক ও ২নং পাটলি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী নবাব ছলিম উল্লাহ।
নির্বাচনে ১নং কলকলিয়া ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আলাল হোসেন রানা, স্বতন্ত্র প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসী মোঃ রফিক মিয়া ও আবদুস সোবহান। নারী সদস্য পদে ১৫ ও সদস্য পদে ৩৬ জন। ২নং পাটলি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আংগুর মিয়া, স্বতন্ত্র প্রার্থী যুক্তরাজ্য প্রবাসী আতিকুর রহমান আতিক, বর্তমান চেয়ারম্যান সিরাজুল হক সহ ৬ জন। নারী সদস্য পদে ১১ ও সাধারণ সদস্য পদে ২৮ জন। চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী হাজী আবদুল গফুর, স্বতন্ত্র প্রার্থী শহিদুল ইসলাম বকুল, বর্তমান চেয়ারম্যান আরশ মিয়া সহ ৬ জন। নারী সদস্য পদে ১১ ও সাধারণ সদস্য পদে ৩০ জন। রাণীগঞ্জ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী শেখ ছদরুল ইসলাম, স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম রানা, যুক্তরাজ্য প্রবাসী ছালিক মিয়া, সিরাজুল ইসলাম আশিক সহ ৬ জন। নারী সদস্য পদে ১৪ ও সাধারণ সদস্য পদে ৩৯ জন। সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান আবুল হাসান সহ ৬ জন। নারী সদস্য পদে ১১ ও সাধারণ সদস্য পদে ২৯ জন। আশারকান্দি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আবদুস ছাত্তার, স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক চেয়ারম্যান আইয়ূব খান, জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী তারেক রহমান নিপু সহ ৯ জন। নারী সদস্য পদে ১৩ ও সাধারণ সদস্য পদে ৩৪ জন। পাইলগাঁও ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী সুন্দর উদ্দিন, স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মখলুছ মিয়া সহ ৪ জন। নারী সদস্য পদে ১৪ ও সাধারণ সদস্য পদে ৪৪ জন প্রার্থীর দাখিল করা মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হয়।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান জানান, এর মধ্যে বিভিন্ন ত্রুটির কারণে রাণীগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী মজলুল হক ও পাটলি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী নবাব ছলিম উল্লার মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। বাকি ৭ ইউনিয়নে ৩৮ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী ও ৮৯ জন নারী সদস্য প্রার্থী এবং ২৪০ জন সাধারণ সদস্য প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *