জগন্নাথপুরে ধান কাটা শেষ ॥ গোলাভর্তি ধান পেয়ে কৃষকের মুখে হাসি

Spread the love

 

 

মো.শাহজাহান মিয়া/আলী হোসেন খান ::

 

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে বোরো ধান কাটা প্রায় শেষ হয়ে গেছে। এবার গোলাভর্তি ধান পেয়ে কৃষক-কৃষাণীর মুখে ফুটে উঠেছে তৃপ্তির হাসি। তবে সরকারের কাছে উচ্চমূল্যে ধান বিক্রি করতে কৃষকদের মধ্যে রীতিমতো প্রতিযোগিতা চলছে।
জানাগেছে, জগন্নাথপুরে এবার নলুয়ার হাওর সহ বিভিন্ন হাওরে মোট ২০ হাজার ৬১০ হেক্টর জমিতে বাম্পার ফলন হয়েছে। সরকারি লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে এবার ১ লক্ষ ২৩ হাজার ৬৬০ মেট্রিকটন ধান উৎপাদন হয়েছে। তবে বৈশাখের শুরুতেই ধান কাটা নিয়ে দেখা দেয় সংশয়। তীব্র শ্রমিক সংকট ও আগাম বন্যার আশঙ্কায় শঙ্কিত হয়ে পড়েন কৃষকরা। এ সময় প্রশাসনের নির্দেশনায় দ্রুত চলে ধান কাটা। স্বেচ্ছাশ্রমে অনেকে কৃষকের ধান কর্তন করে দিয়েছেন। তাই মাত্র দুই সপ্তাহের মধ্যেই জগন্নাথপুর উপজেলার ধান কাটা শেষ করা সম্ভব হয়েছে। কৃষকরা এখন ধান শুকিয়ে গোলা ভর্তি করছেন। সরকারের কাছে উচ্চমূল্যে ধান বিক্রি করতে রীতিমতো চলছে প্রতিযোগিতা। সেই সাথে গবাদি পশুর জন্য চলছে খো-খাদ্য সংগ্রহ।
১০ মে রোববার দেখা যায়, হাওর গুলোতে কোন ধান নেই। সব ধান কর্তন হয়ে গেছে। তবে মাঝে মধ্যে উচু স্থানে কিছু জমি এখনো কাটার বাকি রয়েছে। এ সময় স্থানীয় কৃষকদের মধ্যে হাজী ফয়জুল মুরছালিন ও আসলাম উদ্দিন বলেন, এবার জমিতে বাম্পার ফলন পেয়ে আমরা অনেক খুশি। এখন শুধু সরকারের কাছে ধান বিক্রি করার আশা নিয়ে বসে আছি। জগন্নাথপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শওকত ওসমান মজুমদার বলেন, এবার জগন্নাথপুরে বাম্পার বোরো ফলন হয়েছে। এতে সবার কষ্ট সার্থক হয়েছে। জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুল আলম মাসুম বলেন, প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধি সহ সবার সমন্বিত প্রচেষ্টায় দ্রুত ধান কাটা সম্ভব হয়েছে।

ছবি-নিকেশ বৈদ্য

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *