জগন্নাথপুরে ঝুঁকিপূর্ণ গভীর ভাঙনে বেড়িবাঁধ

 

মো.শাহজাহান মিয়া ::

 

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার আশারকান্দি ইউনিয়নের মোকামের ঢালা নামক গভীর ও ঝুঁকিপূর্ণ ভাঙনে বেড়িবাঁধ নির্মাণ হচ্ছে। প্রতি বছর নদীতে পানি আসলেই কুশিয়ারা ও সুরমা নদীর উত্তাল পানি এ ঢালা দিয়ে জগন্নাথপুরের হাওরে প্রবেশ করে। যে কারণে এ ভাঙনটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও ঝুঁকিপূর্ণ। এবার ৩২নং পিআইসি কমিটির মাধ্যমে ১০ লাখ ২১ হাজার টাকা ব্যয়ে এ গভীর ভাঙনে বেড়িবাঁধ নির্মাণ হচ্ছে।
১৭ ফেব্রুয়ারি বুধবার দেখা যায়, গভীর ভাঙনের দুই পাশে বাঁশের আড় এর সাথে প্লাস্টিকের বস্তা বেধে মাটি ভরাট করা হচ্ছে। উক্ত পিআইসি কমিটির সভাপতি মশহুদ আহমদ বলেন, এ গভীর ভাঙনটি খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। এদিকে পানি প্রবেশ করলে পুরো জগন্নাথপুর তলিয়ে যাবে। তাই সর্বোচ্চ গুরুত্ব সহকারে বাঁধ নির্মাণ করছি। আশা করছি নির্দিষ্ট মেয়াদের মধ্যেই কাজ শেষ হয়ে যাবে। পরে বাঁধটি রক্ষায় পুরো মৌসুম তদারকি করা হবে।
এছাড়া আশারকান্দি ইউনিয়নের দিঘলবাক আটঘর গ্রাম এলাকায় ৩১নং পিআইসি কমিটির মাধ্যমে ১১ লাখ ১৩ হাজার টাকা ব্যয়ে আরেকটি বেড়িবাঁধ নির্মাণ কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। এ পিআইসি কমিটির সভাপতি সাইদুল ইসলাম জানান, আমরা সরকারি বেধে দেয়া সময়ের আগেই কাজ শেষ করতে চাই। এ জন্য দ্রুত কাজ করছি।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *