জগন্নাথপুরে জীবন বাজি রেখে চিকিৎসা সেবা প্রদান

 

 

মো.শাহজাহান মিয়া ::

 

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় জীবন বাজি রেখে চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন ডাক্তারগণ। করোনার কারণে বদলে গেছে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিত্র। এখানে আগের মতো নেই রোগী ও রোগীদের আত্মীয়-স্বজনের আনাগোনা। সরব হাসপাতালটি এখন সুনসান নিরব হয়ে গেছে। মাঝে মধ্যে জরুরী চিকিৎসার জন্য রোগীরা আসলেও তেমন কোন লোক সমাগম নেই। যদিও জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মধু সুধন ধরের নেতৃত্বে সকল ডাক্তার ও সহকারীগণ করোনা মোকাবেলায় কাজ করছেন। তবে হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়মিত দায়িত্ব পালন করছেন ডিপ্লোমা চিকিৎক ডাঃ মির্জা মোহাম্মদ আলী খান রুবেল, ডাঃ শহিদুল্লাহ কায়সার ও ডাঃ মোবারক হোসেন জনি। তাদের সাথে রয়েছেন ওয়ার্ডবয় এমদাদুর রহমান ও হাবিবুর রহমান। যে কোন রোগী হাসপাতালে আসলেই এসব ডাক্তাররা পরীক্ষা-নীরিক্ষা করে ব্যবস্থাপত্র দিয়ে থাকেন। মূলত জীবনের ঝুকি নিয়ে তারা সার্বক্ষনিক ফ্রন্ট লাইনে থেকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করছেন।
১ মে শুক্রবার সরজমিনে দেখা যায়, নারী ও পুরুষ ওয়ার্ডে কোন রোগী নেই। তবে জরুরী বিভাগে রোগী ও তাদের স্বজনরা চিকিৎসা নিতে ভীড় করছেন। রোগীদের চিকিৎসা দিচ্ছেন ডাঃ মির্জা মোহাম্মদ আলী খান রুবেল। তবে জগন্নাথপুরে এ পর্যন্ত মোট ৩ জন করোনা রোগী সনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে হাসপাতালের নমুন সংগ্রহকারীও রয়েছেন। যে কারণে হাসপাতালে অঘোষিত লক-ডাউন চলছে।
এ ব্যাপারে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মধু সুধন ধর বলেন, আমরা সকল ডাক্তার মিলে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় দায়িত্ব পালন করছি। তবে জরুরী বিভাগের দায়িত্বে থাকা ডিপ্লোমা চিকিৎসক উপ-সহকারী মেডিকেল অফিসার ডাঃ মির্জা মোহাম্মদ আলী খান রুবেল বলেন, আমরা জীবন বাজি রেখে সার্বক্ষনিক রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছি।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *